ডাটা এন্ট্রি কি ? মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয়


ডাটা এন্ট্রি কি : আমাদের এই ওয়েবসাইটে আপনাদের সাথে যে টপিক নিয়ে আলোচনা করব তা হলো “মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয়”।

আপনি যদি ডাটা এন্ট্রি করে প্রতিদিন টাকা আয় করতে চান তবে সঠিক জায়গায় এসেছেন। আমাদের মধ্যে অনেক লোক আছে যারা অনলাইন এর মাধ্যমে এবং অফলাইন এর মাধ্যমে ডাটা এন্ট্রি করে মাসে প্রচুর টাকা উপার্জন করছে।

আপনি যদি একজন শিক্ষিত বেকার হয়ে থাকেন তবে এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য একটি সুখবর। 

কারণ আপনি যেহেতু চাকরির পেছনে অনেক ছুটাছুটি করেও চাকরি পাচ্ছেন না। তাই আমি আপনাদের জন্য এমন একটি সহজ অনলাইন কাজ নিয়ে এসেছি। যার ফলে আপনি শুধু মাত্র একটি মোবাইল ফোন ব্যবহার করেই অনলাইন আয় করতে পারবেন।

আপনি যদি অনলাইন ডাটা এন্ট্রি করা করে টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে আপনি ডাটা এন্ট্রি শিখুন। আপনি যদি ভালো ভাবে ডাটা এন্ট্রির কাজ শিখতে পারেন তাহলে আপনার ক্যারিয়ার এখানেই গড়তে পারবেন।

আমরা জানি ডাটা এন্ট্রি কাজ করা অনেক সহজ তবে এই কাজ শেয়ার জন্য আপনার বেশি বেশি টাইপিং দক্ষতা সম্পন্ন হতে হবে। আপনি যত বেশি টাইপিং করতে পারবেন তত বেশি টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

আপনি যদি সত্যিই ডাটা এন্ট্রি করে আয় করতে চান তাহলে আমরা এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য দেওয়া চেস্টা করব। আপনি শুধু আমাদের লেখা গুলো মনযোগ দিয়ে পড়ুন।

ডাটা এন্ট্রি কি ? মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয়

আর্টিকেল সূচীঃ
  • ডাটা এন্ট্রি কি?
  • ডাটা এন্ট্রি কাজ করে আয়
  • ডাটা এন্ট্রি শিখুন
  • ডাটা এন্ট্রি করে আয় করার উপায়
  • অনলাইনে ডাটা এন্ট্রি করে আয়
  • মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয়
  • ডাটা এন্ট্রি করে আয় করার সোর্স
  • ডাটা এন্ট্রি করে কত টাকা আয় করা যায়
  • আমাদের শেষ কথা
ডাটা এন্ট্রি কি?

ডাটা এন্ট্রি হচ্ছে কোন একটি কম্পিউটারের মাধ্যমে নির্দিষ্ট কোন ডাটা বা তথ্য এক স্থান থেকে অন্য স্থানে ইনপুট করা।

ডাটা এন্ট্রির কাজ গুলো হয়ে থাকে লেখা, প্রোগ্রামিং, এক্সেলশীট, ইমেইল প্রসেসিং, কপি থেকে পেস্ট ইত্যাদি।

ডাটা এন্ট্রি কাজটা কি, এবিষয়ে স্পষ্ট করে বোঝার জন্যে আপনাকে ডাটা এন্ট্রি মানে কি সেবিষয়ে আগে বুঝে নিতে হবে।

আপনাকে সহজ ভাবে বুঝানোর জন্য বলছি ডাটা এন্ট্রি মানে একজন টাইপিস্ট এর সাহায্যে টাইপিং এর মাধ্যমে যে কোন হার্ড কপি থেকে ডাটা গুরোকে সফ্ট কপিতে রুপান্তরিত করা এবং ডাটা গুলোকে তাদের যথাযত জায়গায় সংগ্রহ করা করাকে ডাটা এন্ট্রি বলা হয়।

মূলত সেই ডাটা গুলোকে একটি কম্পিউটার এর মাধ্যমে কিছু প্রকার সফটওয়্যার এর মাধ্যমে আপডেট করা হয়। 

ডাটা বলতে যে কোন ধরণের অপজেক্ট, ফাইল, তথ্য বা মিডিয়া ইত্যাদি হতে পারে যেমন- অডিও, ভিডিও, ডকুমেন্ট, টেক্সট, নম্বর, ছবি ইত্যাদি।

ডাটা এন্ট্রির জন্য বিভিন্ন প্রকার ডাটা গুলোকে একটি ডকুমেন্ট থেকে দেখে কীবোর্ড এর মাধ্যমে কম্পিউটারে টাইপ করে ডিজিটাল কপিতে তৈরি করা হয়।

এই সকল ডাটা এন্ট্রি কাজ যে ব্যক্তির মাধ্যমে করানো হয় তাকে বলা হয় ডাটা এন্ট্রি অপারেটর। একজন ডাটা এন্ট্রি অপারেটর আপনিও হতে পারবেন যখন আপনার মধ্যে কম্পিউটার সম্পর্কে আপনার নূন্যতম জ্ঞান বা অভিজ্ঞতা থাকে তাহলেই।

ডাটা এন্ট্রির কাজ করার জন্য একজন ডাটা এন্ট্রি অপারেটর কম্পিউটার এর একটি নির্ধারিত সফটওয়্যার িএর মাধ্যে ডাটা গুলো টাইপ করতে হয় যেমন হতে পারে- মাইক্রোসফট অফিস- এমএস এক্সেল, ওয়ার্ড পের্ড ইত্যাদি সফটওয়্যার গুলোতে ডাটা গুলো ডাটা এন্ট্রি অপারেটরদের দিয়ে করিয়ে নেওয়া হয়।

আপনি যদি আমাদের দেওয়া তথ্য গুলো সঠিক ভাবে অনুসরণ করে থাকেন তাহলে অবশ্যই বুঝতে পারছেন যে, ডাটা এন্ট্রি কি ? যদি না বুঝে থাকেন তাহলে অবশ্যই আরো একবার উপরের আলোচনা পরে নিন।

আরো দেখুনঃ 
ডাটা এন্ট্রি কাজ করে আয়

আপনি উক্ত আলোচনাতে ডাটা এন্ট্রির বিষয়ে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানতে পারছেন। এখন আমি আপনাদের জানাব ডাটা এন্ট্রি কাজ করে আয় করার জন্য আপনার কি কি করতে হবে।

ডাটা এন্ট্রি কাজ করে আয় করার জন্য আপনাকে প্রথমে ডাটা এন্ট্রি শিখতে হবে। কিভাবে ডাটা এন্ট্রি শিখবেন আপনাকে সহজ পরামর্শ দিচ্ছি। 

আপনি যেহেতু ডাটা এন্ট্রি করে আয় করতে আগ্রহী তাই আপনাকে অবশ্যই প্রথমে বাংলা এবং ইংরেজি টাইপিং এর দিকে নজর দিতে হবে। 

আপনি চাইলে আমাদের এই সাইট থেকেই বাংলা এবং ইংরেজি টাইপিং করার সহজ উপায় জানতে পারবেন। আমাদের এই সাইটে মাইক্রোসফট অফিস ২০০৭ PDF এর বাংলা বই আপলোড করা আছে।

আপনি সেই বইটি ডাউনলোড করে টাইপিং করার সকল প্রক্রিয়া জনাতে পারবেন। আপনি যদি নিয়মিত ১ মাস আমাদের “মাইক্রোসফট অফিস ২০০৭” বইটি পড়েন এবং প্রেক্টিস করেন তাহলে সহজেই টাইপিং শিখেতে পারবেন। 

আপনি যখন টাইপিং কাজ শিখে নিতে পারবেন তখন আপনি দ্রুত অনলাইনে যে কোন প্লাটফর্মের মাধ্যমে ডাটা এন্ট্রি কাজ করে নিজের ঘরে বসে টাকা আয় করতে পারবেন। 

ডাটা এন্ট্রি শিখুন

ডাটা এন্ট্রি করে আয় করার জন্য আপনি শুরুতে ডাটা এন্ট্রি শিখুন। আপনি যদি টাইপিং না পারেন তাহলে কিন্তু ডাটা এন্ট্রি করতে পারবেন না। 

আপনার প্রশ্ন হতে পারে যে, ডাটা এন্ট্রি কিভাবে শিখব। চিন্তার কোন কারণ নেই। আমরা উপরের অংশে যে বইটির লিংক দিয়েছি সেটি আপনি ডাউনলোড করে টাইপিং কাজ সম্পূন্ন ভাবে শিখে নিতে পারবেন।

এছাড়া আপনি যদি ডাটা এন্ট্রির কাজ কোর্স হিসেবে শিখতে চান তাহলে ইউটিউব এর সহযোগিতা নিতে পারেন। কারণ  অনেক ইউটিউব চ্যানেল আছে যে গুলোতে ডাটা এন্ট্রি কাজের কোর্স ভিডিও আপলোড করে থাকে। 

কিভাবে কোথায় ডাটা এন্ট্রির কাজ পাওয়া যায় সে বিষয় নিয়ে টিউটরিয়াল তৈরি করে থাকে। আপনি সেগুলো কোর্স হিসেবে শিখতে পারবেন ফ্রিতে এবং পেইড হিসেবে। 

আপনি যদি পেইড শিখেন তাহলে আপনার কিছু টাকা খরচ হবে। আর যদি ফ্রিতে শিখেন তবে ইউটিউবে অনেক কোর্স ভিডিও পাবেন সেগুলো দেখে দেখে শিখতে পারবেন এছাড়া আপনি গুগল এ সার্চ করে বিভিন্ন ওয়েবসাইট আর্টিকেল পড়ে সহজই ডাটা এন্ট্রির কাজ শিখতে নিতে পারবেন।

আপনি যদি সঠিক ভাবে ডাটা এন্ট্রির কাজ শিখতে পারেন তাহলে একানেই আপনার ক্যারিয়ার গড়তে পারবেন। 

ডাটা এন্ট্রি করে আয় করার উপায়

ডাটা এন্ট্রি করে আয় করার জন্য অনেক উপায় আছে। ডাটা এন্ট্রি করে আয় করার জন্য আপনাকে আগে কিছু কাজ শিখতে হবে। 

তারপরে আপনি অনেক উপায় পাবেন ডাটা এন্ট্রি করার জন্য। ডাটা এন্ট্রি করার জন্য আমরা এখানে অনলাইন কিছু উপায় দেখাবো যে গুলো ব্যবহার করে সহজেই টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

অনলাইনে অনেকে খুজে থাকে “অনলাইনে ডাটা এন্ট্রি করে আয়” এবং “মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয়”।

অনেকে প্রশ্ন করে যে মোবাইল দিয়ে কি ডাটা এন্ট্রি করা যায়। হ্যাঁ বন্ধুরা আপনি যদি মোবাইল কিবোর্ড এ মোটামুটি টাইপিং করতে পারেন তাহলেই আপনি মোবাইল দিয়ে ডাটা এন্ট্রি করতে পারবেন।

অনলাইনে ডাটা এন্ট্রি করে আয়

আপনি যদি ডাটা এন্ট্রি করে আয় করতে চান তাহলে অনলাইনে অনেক ধরণের প্লাটফর্ম পেয়ে যাবেন যে গুলোতে একাউন্ট তৈরি করে সহজেই বিভিন্ন ধরণের ডাটা এন্ট্রির সোর্স পেয়ে যাবেন।

আপনি অনলাইনে যে সকল ডাটা এন্ট্রির কাজ করতে পারবেন সেগুলো নিজের ঘরে বসেই করার সুযোগ পাবেন।

আমরা আপনাকে এই সাইটেই জানাবো মোবাইল দিয়ে ডাটা এন্ট্রি করে আয় করার সহজ উপায় ও সোর্সে গুলো।

মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয়

আপনি কি মোবাইল দিয়ে ডাটা এন্ট্রির কাজ করতে চান ? তাহলে আমাদের এই আর্টিকেলটি মনযোগ দিন। আপনি এখানেই ডাটা এন্ট্রি করার জনপ্রিয় সোর্স গুলো জানতে পারবেন।

তো চলুন সময় নষ্ট না করে জেনে নেওয়া যাক মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয় করার সোর্স গুলোর বিষয়ে। 

ডাটা এন্ট্রি করে আয় করার সোর্স

আমি এখন আপনাদের জন্য এখানে জানাব কি কি বিষয়ে ডাটা এন্ট্রি করে আয় করতে পারবেন। আমরা যে কাজ গুলো আপনাকে দেখাবো এগুলো করার জন্য আপনাকে শিক্ষাগত যোগ্যতার কোন সার্টিফিকেট প্রদান করতে হবে না। 

এই কাজের জন্য শুধু মাত্র আপনার কাজের দক্ষতা প্রয়োজন এছাড়া আর কিছু নয়। আপনি যত বেশি ডাটা টাইপিং করতে পারবেন ঠিক তত পরিমাণের টাকা উপার্জন করার সুযোগ পাবেন।

তো চলুন দেখা যাক ডাটা এন্ট্রি করে আয় করার মাধ্যম গুলোঃ
  • কপি থেকে পেস্ট
  • ক্যাপচা এন্ট্রি
  • কোম্পানিতে ডাটা এন্ট্রি
  • ই-মেইল প্রসেসিং
  • ইমেজ থেকে টেক্সট ডাটা এন্ট্রির কাজ
কপি থেকে পেস্ট

আপনি যদি ডাটা এন্ট্রি করে আয় করা কাজ খুজেন তাহলে প্রথম অবস্থায় সহজ কাজটি করে টাকা আয় করতে পারবেন সেটি হলো কপি থেকে পেস্ট করে।

কপি থেকে পেস্ট করে আয় করার জন্য আপনি অনলাইনে অনেক ধরণের প্লাটফর্ম পাবেন যে গুলোতে যুক্ত হয়ে তাদের দেওয়া তথ্য গুলো কপি করে অন্য জায়গায় স্থানান্তর করে দিতে হবে এইটুই কাজ।

আপনি এই অল্প পরিমাণের কাজ করে প্রচুর টাকা আয় করার সুযোগ পাবেন। এই কপি এবং পেস্ট এর কাজ হতে পারে এক্সেলশীট বা ওয়ার্ড ফাইলের মধ্যে। আপনি যদি মাইক্রোফসট অফিস ভালো ভাবে জানেন তাহলে আপনার কাজ করতে অনেক সহজ হবে।

কপি থেকে পেস্ট করার কাজ আপনি কম্পিউটার এবং মোবাইল এর মাধ্যমেও করতে পারবেন। 

ক্যাপচা এন্ট্রি

অনলাইনে টাকা ইনকাম করার জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম হচ্ছে ক্যাপচা এন্ট্রি। আপনি যদি ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয় করতে চান তাহলে আপনার টাইপিং এ দক্ষ হতে হবে।

ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয় করার জন্য অনেক সাইট আছে যে গুলো আমি আপনার সাথে আলোচনা করব ও পরিচয় করিয়ে দেব।

বর্তমান সময়ে অনেক লোক মোবাইল দিয়ে ক্যাচনা কোড পূরণ করে প্রতিমাসে ১৫-২০ হাজার টাকা আয় করছে তাও আবার নিজের ঘরে বসেই।

আপনিও চাইলে ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয় শুরু করতে পারেন। আপনার সুবিধার জন্য আমরা এখানে ক্যাপচা এন্ট্রির কিছু জনপ্রিয় সাইট দেখাবো সেগুলোতে শুধু একটি একাউন্ট তৈরি করেই ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয় করতে পারবেন।
  • Captcha2Cash
  • 2Captcha
  • Kolotibablo
আপনি উক্ত অংশে যে সাইট গুলো দেখতে পারছেন এগুলোতে আপনি সহজেই ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয় করতে পারবেন। 

এগুলো ছাড়া আরো হাজার হাজার ক্যাপচা এন্ট্রি সাইট আছে। আপনি চাইলে সেগুলোও ব্যবহার করতে পারেন। তবে এই সাইট গুলোতে আপনি প্রতিদিন ১০-২০ ডলার আয় করতে পারবেন।

কোম্পানিতে ডাটা এন্ট্রি

বিশ্বে হাজার হাজার কোম্পানি আছে যে গুলো ডাটা এন্ট্রি কাজ করানোর জন্য ডাটা এন্ট্রি অপারেটর খুজে থাকে।

আপনি যদি দক্ষ অপারেটর হোন তাহলে বিভিন্ন ধরণের কোম্পানির  সাথে যোগাযোগ করে কাজ নিতে পারবেন। এবং আপনি ডাটা এন্ট্রি কাজের জন্য নিয়োগও নিতে পাবেন অনেক কোম্পানির কাছ থেকে।

বর্তমান সময়ে ডাটা এন্ট্রি করে আয় করার একটি জনপ্রিয় সাইট এর নাম হলো- freelancer.com.bd আপনি এই সাইটের সাথে যুক্ত হয়ে ডাটা এন্ট্রি জব করতে পারবেন। এই কোম্পানিতে অসংখ্য লোক ডাটা এন্ট্রির কাজ করে। আপনি চাইলে আজই এই সাইটে জয়েন্ট হয়ে ডাটা এন্ট্রির কাজ শুরু করে দিতে পারেন।

ই-মেইল প্রসেসিং

ইমেইল প্রসেসিং একটি জনপ্রিয় ডাটা এন্ট্রির কাজ। ইমেইল প্রসেসিং ডাটা এন্ট্রির কাজ অনেক সহজ। আপনাকে এখানে শুধু বিভিন্ন ধরণের ওয়েবসাইট লিংক দেওয়া হবে। সেই লিংক গুলোতে ক্লিক করতে হবে এবং প্রতিটি ওয়েবসাইটে গিয়ে ৩০-৪০ সেকেন্ড করে থাকতে হবে। 

তাহলেই আপনি ইমেইল প্রসেসিং করে টাকা আয় করতে পারবেন। এই কাজটি ডাটা এন্ট্রির মধ্যে সব চেয়ে সহজ একটি কাজ। আপনারা ইমেইল প্রসেসিং এর কাজ Upwork এর মাধ্যমে করতে পারবেন। 

ইমেজ থেকে টেক্সট ডাটা এন্ট্রি

ইমেজ থেকে টেক্সট ডাটা এন্ট্রি করে আপনি সহজেই টাকা আয় করতে পারবেন। এই কাজের জন্য আপনাকে যে কোন ছবি দেওয়া হবে। ছবি থেকে কোন স্ক্রিনশট বা স্ক্রিনশট ছাড়া আপনাকে সেই ছবিটি ভালো করে পড়ে ওয়ার্ড ফাইলে টাইপিং করতে হবে। 

আপনাকে যে ছবি দেওয়া হবে সেটি ক্যাপচা কোড গুলোর মতো অস্পষ্ট থাকবে। সিটি আপনাকে সুন্দর করে গুছিয়ে ওয়ার্ড ফাইলে টাইপিং করে জমা দিতে হবে। এই কাজটিও ডাটা এন্ট্রি করার জন্য জনপ্রিয় কাজ।

ডাটা এন্ট্রি করে কত টাকা আয় করা যায়

আপনি উক্ত আলোচনায় ডাটা এন্ট্রির বিষয়ে অনেক তথ্য পেয়েছেন। এখন আপনার প্রশ্ন হতে পারে যে, ডাটা এন্ট্রি করে কত টাকা আয় করা যায়।

হ্যাঁ বন্ধুরা আপনি যদি ডাটা এন্ট্রি করে আয় করেন তবে প্রচুর টাকা আয় করতে পারবেন এই বিষয়ে কেও সঠিক ভাবে বলতে পারবে না যে ঠিক কত টাকা আয় করা যায়। 

ডাটা এন্ট্রি করে আয় করার কোন সিমানা নেই। এখানে আপনি দক্ষতা দিয়ে যত বেশি কাজ করতে পারবেন ঠিক তত পরিমাণের টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

তবে আমাদের অভিজ্ঞতা থেকে বলতে পারি আপনি যদি ক্যারিয়ার হিসেবে ডাটা এন্ট্রির কাজ বেছে নিয়ে থাকেন তাহলে এখান থেকে আপনি প্রতিমাসে ৩০০-৫০০ ডলার আয় করতে পারবেন।  আপনার কাজের প্রতি যদি বেশি দক্ষতা থাকে তাহলে প্রতিমাসে ১ লক্ষ টাকাও আয় করতে পারবেন ডাটা এন্ট্রির কাজ করে।

আমাদের শেষ কথা

আমাদের এই নিবন্ধে আপনাদের জানানো হলো ডাটা এন্ট্রি কি ? মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয়। 

আপনি যদি মোবাইল দিয়ে ডাটা এন্ট্রির কাজ করে টাকা আয় করতে চান তাহলে আমাদের দেওয়া তথ্য মতে কাজ করুন ইনশাআল্লাহ আপনিও ডাটা এন্ট্রি করে নিজের ক্যারিয়ার গড়তে পারবেন।

আমাদের লেখা আপনার ভালো লাগলে অবশ্যই কমেন্ট করবেন। এবং এই আর্টিকেলটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করে দিবেন।

ট্যাগঃ ডাটা এন্ট্রি কি ? মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয়  ডাটা এন্ট্রি কি ? মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয়  ডাটা এন্ট্রি কি ? মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয়  ডাটা এন্ট্রি কি ? মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয়  ডাটা এন্ট্রি কি ? মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয় 

ডাটা এন্ট্রি কি ? মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয়  ডাটা এন্ট্রি কি ? মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয়  ডাটা এন্ট্রি কি ? মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয়  ডাটা এন্ট্রি কি ? মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয়  ডাটা এন্ট্রি কি ? মোবাইলে ডাটা এন্ট্রি করে আয় 

আমাদের সাইটে নতুন আর্টিকেল পড়ুার জন্য নিয়মিত ভিজিট করুন ধন্যবাদ। 

Post a Comment

0 Comments